দেশীয় পণ্যের মেলা

খেজুরপাতার থালা, কলার আঁশের গয়না, পোড়ামাটির হস্তশিল্প, নকশিকাঁথার ডায়েরি—হাজারো নান্দনিক পণ্যের আয়োজন নিয়ে শুরু হয়েছে অষ্টম জাতীয় ক্ষুদ্র ও মাঝারি শিল্প (এসএমই) পণ্যমেলা। পণ্যগুলোর রং ও নকশায় দেশীয় আবেদন ছড়ানো। এ বছর দেশীয় পণ্য প্রদর্শনের পাশাপাশি পরিবেশবান্ধব ও ভিন্নধর্মী পণ্যও তৈরি করেছেন উদ্যোক্তারা। রাজধানীর আগারগাঁওয়ের বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক সম্মেলন কেন্দ্রে চলছে এই মেলা।

মেলায় সারা দেশ থেকে ২৯৬ জন উদ্যোক্তা অংশ নিয়েছেন, যাঁদের মধ্যে আছেন ১৯৫ জন নারী এবং ১০১ জন পুরুষ উদ্যোক্তা। মেলায় তুলে ধরা হয়েছে দেশে উৎপাদিত পাটজাত পণ্য, খাদ্য ও কৃষি প্রক্রিয়াজাত পণ্য, চামড়াজাতসামগ্রী, বৈদ্যুতিক সামগ্রী, শাড়ি, সালোয়ার-কামিজ ও ওড়নার সেট, শিশুদের পোশাক, ছেলেদের ফতুয়া। এ ছাড়া ক্রেতারা অন্দরসজ্জার জন্য কিনছেন বিছানার চাদর, সোফার কুশন, নকশিকাঁথা, বালিশের কাভারসহ নানা পণ্য।

আরও আছে খেজুরপাতার তৈরি থালা, ছোট বাটি, কলা ও আনারসের আঁশ দিয়ে তৈরি গয়না, কলমদানি, গয়নার বাক্স, গৃহসজ্জার সামগ্রী নৌকা, ঘর ইত্যাদি। রয়েছে কাগজের তৈরি ফুলদানি, কাচের বোতলে পাটের দড়ি দিয়ে নকশা করা গৃহসজ্জার সামগ্রী, গামছার তৈরি মালা ইত্যাদি। এ ছাড়া মেলায় বিভিন্ন বিক্রয়কেন্দ্রে পাটের ভিন্নধর্মী ব্যাগ, জামদানি শাড়ি, নকশিকাঁথার সালোয়ার–কামিজ, চাদর, হাতে তৈরি গয়না, আচার, পিঠা ও বিভিন্ন খাবার পাওয়া যাচ্ছে। ৪ মার্চ শুরু হওয়া এই মেলা চলবে ১২ মার্চ পর্যন্ত। প্রতিদিন সকাল ১০টা থেকে রাত ৮টা পর্যন্ত মেলা সবার জন্য উন্মুক্ত।

About admin

Check Also

শিশুর জন্য খেলনা

বিছানাতেই শুয়ে আপন মনে খেলছিল সমৃদ্ধি। বয়স আর কত! মাত্র তিন মাস। ধরার সামর্থ্য হয়নি, …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *